হোম পৃষ্ঠা / সংবাদ / যেতে হবে বহুদূর, এই স্লোগান কে বুকে ধারন করে আমরা এগিয়ে যাওয়ার শপথ নিয়েছি

যেতে হবে বহুদূর, এই স্লোগান কে বুকে ধারন করে আমরা এগিয়ে যাওয়ার শপথ নিয়েছি

কথায় আছে- “বিশ্বাসে মিলায় বস্তু,তর্কে বহু দূর।” আপনার মাঝে যখন বিশ্বাস দৃঢ় হবে আপনি পারবেন, তখন থেকেই আপনি সফল। বিশ্বাস জাগানোটাও একটা সফলতা।

একটা সমাজ পরিবর্তন করতে বেশী কিছুর প্রয়োজন নেই, মানুষের ঐক্যবদ্ধ পথচলা আর পরিবর্তন করতে পারবে এই সুদৃঢ় বিশ্বাসই পরিবর্তন করতে পারে। আর আমরা “নোয়াখালী পেইজ” পরিবার নোয়াখালীকে পরিবর্তন করতে একসাথে কাধেঁ কাধঁ মিলিয়ে চলছি।

এই পরিবারে আছে-আমাদের নোয়াখালী পেইজের সকল সদস্য, এর অডিয়েন্সরা। সত্যি বলতে কি-মূলত নোয়াখালী পেইজ বৃহত্তর নোয়াখালীকে ভাবতে সাহস পায় মূলত এর অগণিত ফোলোয়ারদের আন্তরিকতা আর ভালোবাসার কারণে। নোয়াখালীর মানুষের এই অঞ্চলকে নিয়ে আবেগ আমাদেরকে আরো দ্বায়িত্বশীল করে তোলে। ”আমি” হয়ত এই অঞ্চলের সকল সমস্যা সমাধান করতে পারব না, কিন্তু “আমরা” পারব। আমরা শব্দটাই তো শক্তিশালী।

আমরা সকলে মিলে নোয়াখালী বিভাগ আন্দোলন বাস্তবায়নের পাশাপাশি এর অঞ্চলের সমাজিক সমস্যাগুলোর উপরও আলো ফেলতে চাই। এই লক্ষ্যেই ১২ জানুয়ারি,২০১৮ আমরা মিলিত হয়েছি আপনাদের, আমাদের স্বপ্নগুলোকে কিভাবে বাস্তবায়ন করে স্বপ্নের নোয়াখালী গড়া যায়। আর সেই লক্ষ্যে নোয়াখালীর অনেক সমস্যা এবং সম্ভাবনার মধ্যে আমরা প্রথমিকভাবে কয়েকটি সমস্যা সমাধান ও সম্ভাবনাকে এগিয়ে নিতে কর্মপরিকল্পনা গ্রহন করেছি। সেগুলো হলো-

১। বৃক্ষরোপন কর্মসূচি।
২। মাদক নির্মূল
৩। নোয়াখালী ঐতিহ্যবাহী খাবারগুলোকে প্রোমোট করা
৪। ইভটিজিং প্রতিরোধ।
৫। নোয়াখালীর পর্যটন স্থানগুলোকে তুলে ধরা

বৃক্ষরোপন কর্মসূচিঃ বৈশ্বিক উষ্ণায়নের কারণে প্রতিনিয়ত হুমকির মুখে পড়ছে পৃথিবীর বিভিন্নদেশ। আমাদের এই অঞ্চলও হুমকির মুখে। তাই বৃহত্তর নোয়াখালী ব্যাপী আমরা আগামি ৫ বছরে ১ কোটি গাছ লাগানোর কর্মসূচি গ্রহন করেছি।

মাদক নির্মূলঃ মাদক শেষ করে দিতে পারে একটি মানুষকে একটি পরিবারকে একটি সমাজকে তথাপি একটি দেশকে। মাদক সেবনের কারণ এবং এর প্রতিকারে কি ধরণের পদক্ষেপ নেওয়া যায় তা নিয়ে আমরা একটি নির্দিষ্ট কর্ম পরিকল্পনা গ্রহন করেছি।

নোয়াখালী ঐতিহ্যবাহী খাবারগুলোকে প্রোমোট করতে আমরা এলাকাভেদে জনপ্রিয় খাবারের লিষ্ট তৈরি করে সেগুলো আরো সহজে কিভাবে বেশী পরিমান মানুষের কাছে পৌঁছানো যায়, সেটা নিয়ে আমারা পরিকল্পনা গ্রহন করেছি। প্রয়োজনে নোয়াখালী পেইজ সেগুলোকে আরো বেশী সহজলভ্য করতে বাজারজাত করবে।

ইভটিজিং প্রতিরোধঃ ইভটিজিং এর কারণে আমাদের নোয়াখালীর অনেক এলাকায় মেয়েরা স্বুল-কলেজে যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছে এই রকম অনেক উদাহরণ আছে। এই খবরগুলো আমাদেরকে ব্যথিত করে। এই ইভটিজিং বন্ধ করার জন্য আমরা সকলকে নিয়ে সমাজিক সচেতনতামূলক বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহন করতে যাচ্ছি অচিরেই।

আমরা হয়ত আমাদের সকল সমস্যাগুলো নিয়ে একসাথে কাজ করতে পারব না। তবে আমাদের এই অঞ্চলের বিভিন্ন সমস্যা নিরসণে সবাই ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করেলে প্রাণের নোয়াখালী পরিবর্তন হবেই।

সম্পর্কে Mizan Rahman

নোয়াখালী আমাকে কি দিয়েছে সেটা চিন্তা করি না, নোয়াখালীকে আমি কি দিতে পারবো তাই চিন্তা করি।

Check Also

নোয়াখালীর মাঠে নেমেছে বিডি ক্লিন

এইবার মাঠে নেমেছে বিডি ক্লিন নোয়াখালীর কিছু তরুন তরুনি। পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশের স্বপ্ন বাস্তবায়নের জন্য অন্যান্য …

Leave a Reply